Home » এবার নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসবের প্রতিমা দর্শনে খরচা হতে পারে ৫০০ থেকে ২০০০ টাকা

এবার নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসবের প্রতিমা দর্শনে খরচা হতে পারে ৫০০ থেকে ২০০০ টাকা

দুর্গা পুজোর বাকি আর মাত্র কয়েকটা দিন। চলছে শেষ বেলার কাজ । আজ থেকেই মাননীয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুরু করছেন পুজো মণ্ডপ উদ্বোধন। বাঙালির আবেগের এই পুজো এবার একটু অন্যরকম । দু বছর করোনা মহামারীর জন্য সেই ভাবে মন  খুলে পুজোয় আনন্দ করতে পারেননি অনেকেই। সকলের মনেই ছিল করোনা সঙ্ক্রমনের আতঙ্ক । কিন্তু এবার করোনা সঙ্ক্রমনের আশঙ্কা খুবই কম এবং এবারের পুজোয় ইউনেস্কোর স্বীকৃতি বাংলার পুজো কে করে তুলেছে আরও আকর্ষণীয় ।

গোটা কলকাতা জুড়ে খবরের শিরোনামে থাকে নানান পুজোর উদ্যগতা দের খবর। কে কোথায় কি থিম করছে ইত্যাদি , কিন্তু এবার সেখানেই একদম অন্যরকম এর পদক্ষেপ নিল নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসব। যা আবার একাধারে একটা বিতর্ক  সৃষ্টি করেছে।

 

এবার নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসবের প্রতিমা দর্শনের সময় রাখা হচ্ছে একটি বিশেষ টিকিটের ব্যাবস্থা । যার মুল্য ৫০০ , ১০০০ ও ২০০০ টাকা অবধি ধার্য করা হয়েছে । তাহলে কি এবার নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসবের প্রতিমা দর্শন করতে গিয়ে আপনার আমার পকেট থেকে টাকা খরচ করতে হবে ?  এই নিয়েই শুরু নতুন বিতর্কের ।

পুজো উদ্যগতারা জানান, প্রতিবছর নিউ টাউন সার্বজনীন দুর্গোৎসবের প্রতিমা দর্শনে ভিড় উপচে পড়ে যাদের মধ্যে কিছু মানুষ আমাদের এই পুজো তে অনুদান দিতে চান, এবং সাময়িক সদস্য পদ নিতে চান আনন্দ করার জন্য । আমরা কোন চাঁদা তুলি না তাই এবার যারা আমাদের এই পুজোয় অনুদান দিতে চান তাদের জন্যই আমরা রেখেছি এই ব্যাবস্থা ।  ৩০ হাজার বর্গ ফুট জুড়ে এই মণ্ডপ প্রাঙ্গনে থাকবে আড্ডা জোন, ফুড জোন ও আরও অনেক কিছু ।  ৫০০ টাকার টিকিটে পাওয়া যাবে একটি শারদ পত্র, মায়ের ভোগ ও দুটি ভি আই পি পাস। ২০০০ টাকার টিকিটে মিলবে ১০০ টি কুপন, অষ্টমী ও নবমীর ভোগ ও ৪ জনের আড্ডা জোনে বসার অনুমতি। ৫০০০ টাকার টিকিটে মিলবে ১০০ টি কুপন, অষ্টমী ও নবমীর ভোগ ও ৪ জনের আড্ডা জোনে বসার অনুমতি সহ বিজয়া সম্মিলনী তে অনুষ্ঠান দেখার সুযোগ সাথে খানাপিনার আয়োজন , এছারা প্রতিদিনের অনুষ্ঠান দেখার জন্য ২টি করে ভি আই পি পাস । পুজো উদ্যগতারা আরও জানান, অনেকেই তাদের কে স্বেচ্ছায় কিছু অনুদান দিতে চেয়েছেন ইতি মধ্যেই কিন্তু যদি সেটা চাঁদা হিসাবে ধার্য করা হয় তাহলে সকলের থেকে সমান অঙ্কের টাকা নিতে হবে যা সকলের পক্ষে নাও সম্ভব হতে পারে । এই ব্যাবস্থার ফলে তারা আমাদের থেকে কিছু বিশেষ সুবিধা পাচ্ছেন সাথে নিরবিঘ্নে পুজো মন্ডপে ঢোকার অনুমতি।

 

 

 

 

 

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Click to Go Up
    error: Content is protected !!