Home » বন্ধন ব্যাঙ্ক এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হলেন সৌরভ গাঙ্গুলী

বন্ধন ব্যাঙ্ক এর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হলেন সৌরভ গাঙ্গুলী

কলকাতা, ১৩ অক্টোবর, ২০২২: বন্ধন ব্যাঙ্ক সৌরভ গাঙ্গুলিকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসাবে নিযুক্ত করলো ৷ জনপ্রিয়ভাবে দাদা এবং ভারতীয় ক্রিকেটের মহারাজ বলে পরিচত সৌরভ গাঙ্গুলী এবার ব্যাঙ্কের ব্র্যান্ড মেসেজ সবার কাছে পৌঁছে দিতে এবং ব্যাঙ্কের পণ্য ও পরিষেবাগুলির প্রচারে সাহায্য করবেন ৷


দুটি ব্র্যান্ডই একই মাত্রার, সৌরভ গাঙ্গুলী ২০০০- সালের গোড়ার দিকে ভারতীয় ক্রিকেট দলের রূপান্তরের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, ঠিক তেমনই বন্ধন ব্যাঙ্ক ভারতের গ্রামীণ এবং শহরতলীর  অর্থনৈতিক দিক দিয়ে পিছিয়ে থাকা পরিবারগুলির অর্থনৈতিক অবস্থার রূপান্তরে অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছিল। উভয় আইকনিক ব্র্যান্ড এর উৎপত্তিই  পূর্ব ভারতে। সময়ের সাথে তাঁরা আর আঞ্চলিক আইকন নন, তাঁরা  নিজেদের অনেক বৃহত্তর ভৌগলিক অঞ্চলে সফলভাবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। যদিও সৌরভ গাঙ্গুলী একজন গ্লোবাল আইকন, প্রথমে একজন খেলোয়াড়, তারপর একজন অধিনায়ক এবং একজন দক্ষ  প্রশাসক হিসেবে ক্রিকেটে তাঁর কৃতিত্বের জন্য ধন্যবাদ, ঠিক তেমনই বন্ধন ব্যাঙ্ক হল একটি সর্বভারতীয় ব্যাঙ্ক যা দেশের ৩৬টি রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির মধ্যে ৩৪ টি জুড়ে বিস্তৃত ৫৬৪৪ টি ব্যাঙ্কিং আউটলেটের মাধ্যমে ছোট বা বড় সকলকে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা প্রদান করে।


এই সম্পর্কে বন্ধন ব্যাঙ্কের এমডি এবং সিইও শ্রী চন্দ্র শেখর ঘোষ মন্তব্য করেন , “সৌরভ গাঙ্গুলী তার দূরদৃষ্টি, নিষ্ঠা এবং খেলার প্রতি প্রতিশ্রুতির কারণে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সবচেয়ে সফল অধিনায়কদের মধ্যে একজন। সৌরভ এবং বন্ধন ব্যাঙ্ক এর মূল্যবোধেও অনেক মিল রয়েছে ৷ উনি একজন বিশ্ববিদিত এবং সকল মানুষের কাছে কাছে সম্মানীয়। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে এই অংশীদারিত্ব আমাদের আরও মনোযোগ আকর্ষণ করতে সাহায্য করবে, ব্র্যান্ড সম্পর্কে আরও বেশি সচেতনতা প্রচারের মাধ্যমে আমাদের বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। এই অংশীদারিত্বের ফলে আমরা আরও ভালোভাবে আমাদের  গ্রাহকদের সাথে দৃঢ়ভাবে সংযোগ স্থাপন করতে পারবো যা আমাদের মূল উদ্দেশ অন্তর্ভুক্তিমূলক ব্যাঙ্কিংয়ের ক্ষেত্রে আমাদের আরও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাবে।”

এই অ্যাসোসিয়েশন সম্পর্কে বলতে গিয়ে, সৌরভ গাঙ্গুলী বলেন, “আমি ব্র্যান্ড বন্ধন এর উত্থান ঘনিষ্ঠভাবে দেখেছি এবং এত অল্প সময়ের মধ্যে যা অগ্রগতি করেছে তাতে আমি গর্বিত। আমি যে বিষয়টি সম্পর্কে সবচেয়ে বেশি প্রশংসা করি তা হল বন্ধনের লক্ষ্যনিষ্ঠ ব্যাঙ্কিং এবং সমাজের ভিত্তিস্তরের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা। এইসব আমার সাথে ভালভাবে মেলে, আমি নিজে প্রথমে একজন অধিনায়ক এবং এখন একজন প্রশাসক হিসাবে সবসময় লক্ষ্য রাখি সুস্থির প্রভাবের প্রতি। বন্ধন ব্যাঙ্ককে সারা দেশে আরও স্বীকৃত করে তোলার দায়িত্ব পেয়ে আমি সৌভাগ্যবান।”

এর  আগের ঘোষণাগুলিতে, বন্ধন ব্যাঙ্ক উল্লেখ করেছিল যে আগামী কয়েক বছরে মূল লক্ষ্য হলো  গ্রাহকদের সাথে আরও নিবিড় সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে সম্পদ পোর্টফোলিওর বৈচিত্র্যকরণ; নতুন প্রতিভা নিয়োগ সহ মানুষের দক্ষতা বৃদ্ধি; অভ্যন্তরীণ প্রযুক্তি, বিশ্লেষণ এবং ডিজিটাল ক্ষমতার বিকাশ; এবং কাসা  (কারেন্ট অ্যাকাউন্ট সেভিংস অ্যাকাউন্ট) এর একত্রীকরণ । চলতি অর্থবছরে ব্যাঙ্ক  ৫৫১টি শাখা খোলার পরিকল্পনা রেখেছে ।

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Click to Go Up
    error: Content is protected !!