কথায় আছে জোর যার মুলুক তার । ভারতবর্ষের বর্তমান অবস্থা ঠিক এরকমই । যদিও আগেও তাই ছিল । গতকাল দেশ জুড়ে বিজয়া দশমীর সাথে সাথে দশেরা উদযাপিত হয়েছে। অবাঙালী ভারতীয় দের মধ্যেয় এই দশেরা উৎসব বিশেষ প্রাধান্য পেয়ে থাকে ।

বহু ক্ষমতাশালী বিত্তবান মানুষ এই দিন তাদের নিজেদের আত্ম- রক্ষার্থে সরকারি অনুমতি নিয়ে বা আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অনুমতি নিয়ে বা লাইসেন্স নিয়ে আগ্নেয়াস্ত্র রাখতে পারেন আবার অনেকের বাড়ীতে সেই অস্ত্র বংশ পরম্পরায় থেকে এসেছে । ভারতীয় সংস্কৃতি এবং আইন ভারতে এই বন্ধুক সংস্কৃতি কে একদমই উৎসাহিত করতে চায়না । সেখানে আইনি পরিভাষায় এও বলা আছে যে, কারো কাছে যদি কোন বৈধ অস্ত্র বা আগ্নেয়াস্ত্র থাকে তাহলে তিনি তার ছবি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করতে পারবেন না ।

বৈধ অস্ত্র বা আগ্নেয়াস্ত্র এর ছবি সামাজিক মাধ্যমে যে কোন রকম ভাবে প্রদর্শন করলে , তৎক্ষণাৎ সেই  অস্ত্রের বৈধতা বাতিল করে তাকে গ্রেফতার করা হবে ।

কিন্তু উত্তর প্রদেশের , যোগী আদিত্য নারায়ণের অন্যতম বিধায়ক শ্রীমতী মীণাক্ষী সিং , পেশায় আইনজীবী , তিনি দশেরা উপলক্ষে তার ঘরের বৈধ আগ্নেয়াস্ত্র গুলি সারি দিয়ে সাজিয়ে, রীতি অনুযায়ী পূজো করার ছবি শেয়ার করেছেন । যা ভারতীয় আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণই বেআইনি । এক্ষেত্রে এটি ক্ষমতা ও শক্তি প্রদর্শন ছাড়া আর কি ? জানান আপনারাই ।