Home » বর্তমান অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ২০৯ কোটি টাকার মুনাফা ঘোষণা করল বন্ধন ব্যাঙ্ক

বর্তমান অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ২০৯ কোটি টাকার মুনাফা ঘোষণা করল বন্ধন ব্যাঙ্ক

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২ এ ব্যাঙ্কের মোট গ্রাহক সংখ্যা ২.৭৭ কোটি

– গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে প্রদত্ত ঋণের পরিমান ১৮ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৯৫৮৩৫ কোটি টাকা
– গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে মোট আমানতের পরিমান ২১ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৯৯,৩৬৫ কোটি টাকা
– গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে কাসা (কারেন্ট অ্যাকাউন্ট সেভিংস অ্যাকাউন্ট) বৃদ্ধি হয়েছে ১১ শতাংশ
– কাসা অনুপাত রয়েছে ৪০.৮ শতাংশে
– মোট আমানত-এর মধ্যে রিটেল ব্যবসার অনুপাত ৭৪ শতাংশ

কলকাতা, ২৮ অক্টোবর , ২০২২ : বন্ধন ব্যাঙ্ক চলতি ২০২২-২৩ অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের আর্থিক ফলাফল আজ ঘোষণা করল। অনুকূল কাজের পরিবেশের অবস্থার উন্নতির সাথে, ব্যাঙ্কও তার প্রভূত ব্যবসায়িক উন্নতির ধারা অব্যাহত রাখতে পেরেছে।

Mr. Chandra Shekhar Ghosh, MD & CEO, Bandhan Bank & Mr. Sunil Samdani, CFO, Bandhan Bank

৩০শে সেপ্টেম্বর,২০২২ অবধি বন্ধন ব্যাঙ্কের মোট ব্যবসা (আমানত ও ঋণ) গত আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ১৯.৫ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ১৯৫২০০ কোটি টাকা। ভারতবর্ষের ৩৬টির মধ্যে ৩৪টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে থাকা মোট ৫,৬৪৬ টি ব্যাঙ্কিং আউটলেট ও শাখার মাধ্যমে ২.৭৭ কোটি গ্রাহককে পরিষেবা দেয় বন্ধন ব্যাঙ্ক। বর্তমানে বন্ধন ব্যাঙ্কের মোট কর্মী সংখ্যা ৬৪০০০ ।

বন্ধন ব্যাঙ্কের আমানতের পরিমান গত আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ২১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে । বর্তমানে মোট আমানতের পরিমান ৯৯,৩৬৫ কোটি টাকা । এই সময়ে ব্যাঙ্কের খুচরো আমানত (রিটেল ডিপোজিট ) উল্লেখজনক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে , গত আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে ৭% শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে তা হয়েছে ৭৩,৬৬০ কোটি টাকা। গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের তুলনায় কাসা ( কারেন্ট অ্যাকাউন্ট সেভিংস অ্যাকাউন্ট) ১১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং মোট আমানতের মধ্যে এখন কাসা অনুপাত হল ৪০.৮ শতাংশ। গত অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে গ্রাহকদের প্রদত্ত ঋণের তুলনায় চলতি অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে প্রদত্ত ঋণের পরিমান ১৮ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। বর্তমানে মোট প্রদত্ত ঋণের পরিমান ৯৫৮৩৫ কোটি টাকা।

ক্যাপিটাল অ্যাডিকোয়েসি রেশিও (সিএআর) যা কোনও ব্যাঙ্কের সুস্থিরতা প্রতিফলিত করে, বন্ধন ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রে সিএআর এখন ১৯.৪% শতাংশ, যা নিয়ন্ত্রক নির্ধারিত প্রয়োজনীয় মাত্রার তুলনায় অনেকটাই বেশি।

বন্ধন ব্যাঙ্ক এই অর্থবর্ষে দেশ জুড়ে ৫৫০ টিরও বেশি নতুন শাখা খোলার পরিকল্পনা করেছে। এসএমই লোন, গোল্ড লোন,পার্সোনাল লোন এবং গাড়ির লোনের মতো ক্ষেত্রে ব্যাঙ্ক নিজের পোর্টফোলিও বিস্তারের লক্ষ্য নিয়েছে।

ব্যাঙ্কের আর্থিক ফলাফল প্রসঙ্গে বন্ধন ব্যাঙ্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও শ্রী চন্দ্রশেখর ঘোষ বলেন, “চলতি অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিক ব্যাঙ্কের জন্য ভালো কেটেছে, গত অর্থবর্ষের সমকালের তুলনায় এবার বন্ধন ব্যাঙ্ক এর প্রভূত ব্যবসায়িক বৃদ্ধি হয়েছে। আমাদের ডিস্ট্রিবিউশন ও প্রোডাক্ট পোর্টফোলিও বৃদ্ধির সাথে সাথে সকল দেশবাসীকে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা পৌঁছে দিতেও আমরা সমর্থ। আমরা কোটি কোটি দেশবাসীর বিশ্বাস অর্জন করতে পেরে ভাগ্যবান এবং আমরা তাঁদের সেবায় নিযুক্ত থাকবো।”

    Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *

    Click to Go Up
    error: Content is protected !!